ইইউ নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রাশিয়ার সাথে গ্যাস চুক্তি করলো সার্বিয়া



একদিকে ইউক্রেন যুদ্ধের উন্মাদনা অন্যদিকে সার্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেছেন যে, তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে রোববার টেলিফোনে কথোপকথনের সময় রাশিয়ার সাথে “অত্যন্ত সুবিধাজনক” একটি প্রাকৃতিক গ্যাস চুক্তি নিশ্চিত করেছেন।

সার্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ভুচিচ সরাসরি ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের নিন্দা জানাতে অস্বীকার করেছেন। তার দেশ মস্কোর বিরুদ্ধে পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞায় যোগ দেয়নি।

জুনের প্রথম দিকে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরফের বেলগ্রেড সফরের সময় গ্যাস চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হবে বলে ধারণা করা হয়। ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর থেকে কোনো ইউরোপীয় দেশে একজন উচ্চপদস্থ রুশ কর্মকর্তার এটি হবে একটি বিরল সফর।

ভুচিচ জানিয়েছেন যে, তিনি পুতিনকে বলেছেন, তার আশা “যত দ্রুত সম্ভব শান্তি প্রতিষ্ঠিত হোক।“

সার্বিয়া প্রায় সম্পূর্ণভাবে রুশ গ্যাসের ওপর নির্ভরশীল এবং দেশটির প্রধান জ্বালানি সংস্থাগুলোর সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ রুশ মালিকানাধীন।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন যদি তার সদস্য দেশগুলোর উপর দিয়ে রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় তাহলে সার্বিয়া কীভাবে রাশিয়ার গ্যাস পাবে তা স্পষ্ট নয়।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।