জানালেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর



বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মাইল্ড হার্ট অ্যাটাক হওয়ার পর, তার করোনারি আর্টারিতে রিং বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন, দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, “চিকিৎসকরা খালেদা জিয়ার এনজিওগ্রাম করে করোনারি আর্টারিতে ব্লকেজ দেখতে পান। পরে তারা সফলভাবে সেখানে একটি রিং স্থাপন করেছেন।”

শনিবার (১১ জুন) গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে, এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান মির্জা ফখরুল।

এর আগে, দলের এক জরুরি বৈঠকে তিনি বলেন, “খালেদা জিয়ার মাইল্ড হার্ট অ্যাটাক হওয়ায়, এভারকেয়ার হাসপাতালে তার চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড এনজিওগ্রাম করার সিদ্ধান্ত নেয়।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “হার্ট অ্যাটাকের পর বিএনপি চেয়ারপার্সন শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। রিং বসানোয় তিনি হার্টের সমস্যা থেকে সাময়িক আরোগ্য পাবেন বলে আশা করছেন চিকিৎসকরা।”

“উন্নত চিকিৎসা নিতে না পারলে, খালেদার জীবন ঝুঁকির মুখে পড়বে “ উল্লেখ করেন মির্জা ফখরুল।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের জীবন বাঁচাতে, তাকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেয়ার জন্য আবারও দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

এর আগে, হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায়, খালেদা জিয়াকে শনিবার ভোরে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।