টিগ্রায় বাহিনীর সাথে আলোচনার জন্য কমিটি গঠন: ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী



ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ ১৮ মাস যুদ্ধের পর টিগ্রায় বাহিনীর সাথে শান্তি আলোচনা শুরু করার জন্য একটি কমিটি গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন।

আবি মঙ্গলবার সংঘাত সম্পর্কে সংসদে কথা বলেছেন যা রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয়েছে।

তিনি বলেন, “আমরা যুদ্ধক্ষেত্রে যে বিজয় অর্জন করেছি শান্তি আলোচনায় তার পুনরাবৃত্তি করতে হবে,” তিনি আরও বলেন, যুদ্ধ দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করছে।

আবি বলেছেন যে কমিটির নেতৃত্ব দেবেন উপ-প্রধানমন্ত্রী ডেমেকে মেকনেন এবং আলোচনার বিষয় কী হবে তা সিদ্ধান্ত নিতে ১০ থেকে ১৫ দিন সময় দেওয়া হবে।

যদিও আলোচনায় ইথিওপিয়ার গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটানোর সম্ভাবনা থাকতে পারে, তবে বেলজিয়াম-ভিত্তিক অলাভজনক গবেষণা গোষ্ঠী ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের বিশ্লেষক উইলিয়াম ডেভিসন ভয়েস অফ আমেরিকাকে বলেছেন যে গুরুত্বপূর্ণ বিবরণ শীঘ্রই আসবে।

তিনি বলেন, “আমাদের অংশগ্রহণকারীদের সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা নেই,একটি টেকসই শান্তি অর্জনের জন্য সংঘর্ষে অন্যান্য যারা জড়িত তাদের প্রতিনিধিত্বের প্রয়োজন হবে।”

সাম্প্রতিক সংঘাতে আমহারা এবং জাতীয় বাহিনী দ্বারা দখলকৃত পশ্চিম টিগ্রায় এর বিতর্কিত অঞ্চলের টিগ্রায় বাহিনীর (টিপিএলএফ) ফিরে আসা শান্তি বৈঠকের একটি প্রধান আলোচ্য বিষয় হতে পারে।

ইথিওপিয়ার সরকার এবং টিগ্রায় পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের মধ্যে টিগ্রায়তে সংঘাত ২০২০ সালের শেষের দিকে শুরু হয়েছিল। এটি দ্রুত একটি গৃহযুদ্ধে রূপ নিয়েছিল। সেসময় দুর্ভিক্ষে কয়েক লক্ষ লোক জীবন হারিয়েছে ও ২০ লক্ষ মানুষ তাদের বাড়িঘর থেকে বাস্তুচ্যুত হতে বাধ্য হয়েছে।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।