“তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি নিয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই”: সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল



সিইসি বলেন, “তত্ত্বাবধায়ক সরকারসহ যে বিভিন্ন সরকারের দাবি করা হচ্ছে, সেটা কিন্তু আমাদের বিষয় নয়। তাই বিরোধী দলের দাবির বিষয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই। এটি একটি সাংবিধানিক বিষয়। রাজনৈতিক দলের নেতারা যদি একমত হন, তারা দেখবেন।”

সোমবার (১৩ জুন) রাজধানী ঢাকার নির্বাচন ভবনে, ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) সঙ্গে বৈঠক শেষে, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি এ কথা বলেন।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, “নির্বাচনের সময় যে সরকার থাকবে, সেটাই নির্বাচনকালীন সরকার। নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে বর্তমানে যে আইন আছে, সেটাই নির্বাচনকালীন সরকার। তার সঙ্গে আমাদের ইন্টারঅ্যাকশন বেড়ে যাবে। একজন মন্ত্রী কিন্তু দলের নয়। আমরা চাই, তারা আমাদের সহযোগিতা করুক।”

সিইসি বলেন, “সরকার আইন অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করতে বাধ্য। আমরা সব নির্বাচনে সরকারের কাছে সহযোগিতা চাইব এবং অবশ্যই আমরা আশা করব, সরকার সহযোগিতা করবে।”

হাবিবুল আউয়াল আশা প্রকাশ করেন যে, “নির্বাচনকালীন সরকার, নির্বাচনকালীন সরকারের মতো আচরণ করবে। কারণ তারা সংবিধানের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পক্ষপাতিত্ব না করে, নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনের শপথ নিয়েছে।”

সিইসি বলেন, “আমার বিশ্বাস তারা (নির্বাচনকালীন সরকারের মন্ত্রীরা) তাদের শপথটা জানেন। অন্তত একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থেই তারা নির্বাচনকালীন সরকারের মতো আচরণ করবেন এবং কোনো দলের নয়, সরকারের মন্ত্রী হিসেবে আচরণ করবেন তারা।”



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।