নেপালের পর্বতে বিমানের ধ্বংসাবশেষ, ১৪ জনের মৃতদেহ উদ্ধার



সোমবার নেপালের পর্বতে হারিয়ে যাওয়া একটি বিমানের ধ্বংসাবশেষ পর্বতের ধারে পাওয়া গেছে এবং সেনাবাহিনী জানিয়েছে, ২২ জনের মধ্যে ১৪ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছে।

কাঠমন্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টেকনাথ সিতৌলা বলেন, উদ্ধারকারীরা দুর্ঘটনাস্থল থেকে ১৪ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। জীবিতদের বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়া হয়নি। দুর্ঘটনাস্থলে অনুসন্ধান অব্যাহত ছিল।

২০ মিনিটের এক ফ্লাইটে ট্যারা এয়ার টার্বোপপ টুইন অটার রোববার গভীর নদী গিরিখাত এবং পর্বতের চূড়ার একটি এলাকার ওপর দিয়ে উড়ে যাওয়ার সময় বিমানবন্দরের টাওয়ারের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

সেনাবাহিনী বলেছে, বিমানটি কাঠমন্ডু থেকে ২০০ কিলোমিটার পশ্চিমে পোখারা থেকে ওড়ার পর পাহাড়ী শহর জমসমের কাছে মুস্তাং জেলার সানোসওয়ারে বিধ্বস্ত হয়।

বিমানটিতে ৪ জন ভারতীয় ও ২ জন জার্মান নাগরিক ছিলেন। ৩ জন ক্রু সদস্য ও অন্য যাত্রীরা ছিলেন নেপালি নাগরিক।

ভারতীয় ও নেপালি তীর্থযাত্রীদের কাছে এবং বিদেশী হাইকারদের কাছে ঐ জায়গাটি জনপ্রিয়। সেখানে মুক্তিনাথ মন্দির আছে।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।