বন্দুক সহিংসতার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে র‍্যালিতে যোগ দিয়েছে হাজার হাজার মানুষ



শনিবার ওয়াশিংটনসহ যুক্তরাষ্ট্রব্যাপী অনুষ্ঠিত শত শত র‌্যালিতে হাজার হাজার প্রতিবাদকারী সমবেত হন। তাদের দাবি, আইনপ্রণেতারা যেন বন্দুক সংশ্লিষ্ট সহিংসতা হ্রাসের উদ্দেশ্যে আইন পাস করেন। গত মাসে টেক্সাসের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সংঘটিত হত্যাযজ্ঞের জের ধরে এই প্রতিবাদের আয়োজন করা হয়েছে।

দেশের রাজধানীতে ‘মার্চ ফর আওয়ার লাইভস (এমএফওএল)’ এর আয়োজকেরা অনুমাণ করছেন যে, ওয়াশিংটন মনুমেন্টের কাছের ন্যাশনাল মল-এ, হালকা বৃষ্টির মধ্যেও, ৪০ হাজার মানুষ সমবেত হয়েছেন। ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডের একটি উচ্চ বিদ্যালয়ে, ২০১৮ সালে হওয়া হত্যাযজ্ঞ থেকে বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থীরা এই বন্দুক-নিরাপত্তা সংস্থাটি (গান সেইফিটি গ্রুপ) প্রতিষ্ঠাতা করে।

নিউ জার্সির লরেন্সভিল থেকে আসা ৪১ বছর বয়সী কোর্টনি হ্যাগার্টি একটি গবেষণা লাইব্রেরিতে কাজ করেন। তিনি তার ১০ বছর বয়সী কন্যাসন্তান কেট এবং ৭ বছর বয়সী পুত্রসন্তান গ্রেয়াম-কে সাথে নিয়ে ওয়াশিংটনে এসেছেন।

হ্যাগার্টি জানান, “তার কন্যাসন্তানের প্রথম জন্মদিনের ঠিক একদিন পরই, ২০১২ সালের ডিসেম্বরে, কানেটিকাট এর নিউটাউনের স্যান্ডি হুক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গোলাগুলির ঘটনাট ঘটে। ঐ ঘটনায়, এক বন্দুকধারীর গুলিতে ২৬জন নিহত হন। নিহতদের বেশিরভাগই ছিল ৬ থেকে ৭ বছর বয়সী শিশু।

হ্যাগার্টি বলেন, “সেটা [ঐ ঘটনা] আমাকে অপ্রস্তুত করে ফেলে। আমি বিশ্বাস করতে পারি না যে, ওর [হ্যাগার্টির কন্যাসন্তানের] বয়স ১১ হতে চলেছে এবং আমরা এখনও এটাই করছি।”

ভার্জিনিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স থেকে আসা ৬৫ বছর বয়সী কে ক্লেইন এই মাসের শুরুতেই অবসর গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেন, আমেরিকানদের উচিৎ সামনের নভেম্বরের মধ্যমেয়াদী নির্বাচনে, যখন কংগ্রেসের নিয়ন্ত্রণের লড়াই হবে, সেসব রাজনীতিবিদদের ভোট না দেওয়া, যারা কোন পদক্ষেপ নিতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন।”

সাম্প্রতিক সময়ের গোলাগুলির ঘটনাগুলো, বন্দুক সহিংসতা বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রে চলমান বিতর্কে নতুন করে জরুরি পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। যদিও এবিষয়ে একটি ফেডারেল আইন পাস হওয়ার সম্ভাবনা এখনও অনিশ্চিত, কারণ রিপাবলিকানরা বন্দুকের উপরে কোন ধরণের কড়াকড়ি আরোপের বিষয়ে ঘোর বিরুদ্ধে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, যিনি নিজে একজন ডেমোক্র্যাট, এই মাসের শুরুর দিকে কংগ্রেসের প্রতি অনুরোধ জানান, যাতে তারা অ্যাসল্ট বা হামলায় ব্যবহারযোগ্য অস্ত্র নিষিদ্ধ ঘোষণা করে, বন্দুক ক্রয়কারীর বিষয়ে আরও বেশি তথ্য সংগ্রহ করার বিধান করে এবং অন্যান্য পদক্ষেপ গ্রহণ করে। বাইডেন এও জানান যে, তিনি শনিবারের প্রতিবাদকে সমর্থন করেন।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।