বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান মুমিনুল



টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাঁ-হাতি ব্যাটার মুমিনুল হক।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

সংবাদমাধ্যমকে মুমিনুল বলেন, “আমি বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করতে ইচ্ছুক নই। এটা বিসিবি সভাপতিকে জানিয়েছি। এখন বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে তারা কাকে দায়িত্ব দেবে।”

তিনি বলেন, “আমি মনে করি দলকে ভালো করতে অনুপ্রাণিত করতে পারিনি এবং দলে ভালো অবদান রাখতে পারিনি। এই পর্যায়ে আমি মনে করি, অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়ে ব্যাটিংয়ে নজর দেয়াই আমার জন্য ভালো। আমি বিসিবি সভাপতিকে এগুলো জানিয়েছি।”

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সম্প্রতি মমিনুলকে বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন অব্যাহত রাখতে চান কি না তা নিয়ে ভাবতে বলেছে।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, “তাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তার জন্য কোনটি ভালো। যখন একজন অধিনায়ক ও ব্যাটার হিসাবে রান আসে না তখন চাপটা বেড়ে যায়।”

ওদিকে জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেছেন, তিনি মুমিনুলের অধিনায়কত্বের ওপরই নির্ভর করতে চান। মুমিনুল কিছুদিন ধরে ফর্মের বাইরে আছে এবং তার পুরোনো ফর্ম ফিরে পেতে তাকে আরও কঠোর পরিশ্রম করতে হবে বলে তিনি জানান।

মুমিনুল তার শেষ ১৫ টেস্ট ইনিংসে মাত্র একটি ফিফটি পেয়েছেন এবং তার মধ্যে ১২ ইনিংসে তিনি দুই অঙ্কের স্কোরে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

মুমিনুলের নেতৃত্বে বাংলাদেশ মোট ১৭ টেস্ট খেলে জয় পেয়েছে মাত্র তিনটিতে। আর দুটি ড্র নিয়ে বাকি ১২ ম্যাচে হেরেছে বাংলাদেশ।

সর্বশেষ ঘরে মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ শেষে মুমিনুলের সঙ্গে বৈঠক করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। সূত্র মতে, বৈঠকটি ছিল বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে মুমিনুলের ভবিষ্যৎ নিয়ে।

কিছুদিন পর টেস্ট দলের অধিনায়ক হিসাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজে সফরের নেতৃত্ব দেয়ার কথা ছিল মুমিনুলের

এখন, মুমিনুল তার অধিনায়কত্বের বিষয়ে পরিষ্কার করার পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগে নতুন অধিনায়ক নিয়োগের দায়িত্ব বোর্ডের ওপর। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত টেস্ট অধিনায়কের বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি বোর্ড।

কিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে বাংলাদেশের পরবর্তী টেস্ট অধিনায়ক করা হতে পারে। যদিও এ বিষয়ে বিসিবি বা সাকিব আল হাসান কেউই কিছু বলেননি।

আগামী ৫ জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। সেখানে স্বাগতিকদের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট, তিন ম্যাচ করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।