বেইজিংয়ে কোভিডের ‘বিষ্ফোরক’ সংক্রমণ; সাংহাইতে গণহারে পরীক্ষা



চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে কোভিড-১৯ সংক্রমণ “বিস্ফোরকভাবে” ছড়িয়ে পড়ছে এবং সংক্রমণগুলো একটি পানশালার সাথে সম্পর্কিত বলে সরকারি এক মুখপাত্র শনিবার জানান। অপরদিকে বাণিজ্যিক কেন্দ্র সাংহাইতে সংক্রমণ হঠাৎ বৃদ্ধি পাওয়ায় সেখানে গণহারে পরীক্ষা চালানো হচ্ছে। সাংহাইয়ের সংক্রমণগুলো একটি সেলুনের সাথে সম্পর্কিত।

বৃহস্পতিবার থেকে বেইজিংয়ে নতুন করে কোভিড সংক্রান্ত বিধিনিষেধ জোরদার করার পর এমন ঘোষণা দেওয়া হল। সান্ধ্যকালীন বিনোদনকেন্দ্র, দোকানপাট ও দূতাবাস সম্বলিত এক মহল্লায় সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার পর, বেইজিংয়ের অন্তত দুইটি ডিস্ট্রিক্টে কিছু কিছু বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বেইজিং কর্তৃপক্ষ শনিবার জানায় যে, শুক্রবার শহরে নতুন করে সংক্রমণ ধরা পড়া ৬১ জনের সকলেই হয় হেভেন সুপারমার্কেট বারে গিয়েছিলেন বা তার সাথে সম্পর্কিত।

বেইজিং পৌর সরকারের মুখপাত্র, ঝু হেজিয়ান এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “সাম্প্রতিক সংক্রমণ … অত্যন্ত বিস্ফোরক এবং বিস্তৃত।”

রাজধানীতে শনিবার স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা পর্যন্ত (০৭০০ ঘটিকা গ্রীনিচ মান সময়) ৪৬ জন নতুন রোগী সনাক্ত করা হয়। তাদের সবাই ইতোমধ্যেই আইসোলেশনে বা পর্যবেক্ষণে রয়েছেন বলে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লিউ শাওফেং জানান।

মাত্র দুই সপ্তাহেরও কম সময় আগে বেইজিং বিধিনিষেধ শিথিল করেছিল। তার আগে এপ্রিলে আরম্ভ হওয়া এক ব্যাপক সংক্রমণ রোধ করতে সেবার বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছিল।

এদিকে, সাংহাইতে কর্মকর্তারা তিনজন স্থানীয়ের সংক্রমণ নিশ্চিতের ঘোষণা দেন। একই সাথে শনিবার কোয়ারেন্টিন এলাকার বাইরে একজন লক্ষণহীন রোগীর খবরও জানানো হয়। শহরটির ২ কোটি ৫০ লক্ষ বাসিন্দার প্রায় সবার নতুন করে কোভিড পরীক্ষা আরম্ভ করা হয়েছে।

এই সপ্তাহান্তে সাংহাইয়ের ১৬টি ডিস্ট্রিক্ট-এর মধ্যে ১৫টির সকল বাসিন্দার জন্য পিসিআর পরীক্ষার আদেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষা চলাকালীন, পাঁচটি ডিস্ট্রিক্ট তাদের বাসিন্দাদের বাসা থেকে বের হতে নিষেধ করেছে। শহরের এক কর্মকর্তা জানান যে, ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাসিন্দাদের প্রতি সপ্তাহে অন্তত একবার করে পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে।

চীনের সবচেয়ে জনবহুল এই শহর কোভিড-১৯ এর কারণে আরোপিত দুইমাসব্যাপী কঠোর লকডাউন মাত্র ১ জুনেই তুলে নিয়েছিল।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।