ভারী বোঝা পরিবহনের জন্য ছাগলের আকৃতির রোবট আবিষ্কার করেছে জাপান




কাওয়াসাকি হেভি ইন্ডাসট্রিজ নামে পরিচিত জাপানের একটি বহু-জাতিক কোম্পানি চার পা বিশিষ্ট রোবোটটি প্রথম তৈরি করে। তারা মনে করে সে দেশের বয়স্ক লোকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শ্রমিক ঘাটতির এই সময়টাতে এই রোবট সাহায্য করতে পারবে।

বন্য ছাগলের প্রজাতি আইবেক্স-এর নামানুসারে “বেক্স” নামে ডাকা হচ্ছে এই রোবটটিকে। বৃহৎ বাঁকানো শিং-এর রোবটটি রুক্ষ জমির উপর চার পায়ে হাঁটতে পারে কিংবা পেটের নিচে আটকে থাকা চাকা ব্যবহার করে মসৃণ পৃষ্ঠেও দ্রুত চলতে পারে। এই রোবট ১০০ কেজি (২২০.৪ পাউন্ড) পর্যন্ত ভারী বোঝা বহন করতে সক্ষম। কোম্পানি বলেছে, ব্যাটারি চালিত বেক্স নিজে থেকে অথবা রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে চলতে পারে।

মোটরসাইকেল কোম্পানি হিসাবে বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত, কাওয়াসাকি ২০১৭ সালে হিউম্যানয়েড বা মানব আকৃতির রোবট তৈরি করা শুরু করে। দুই পা বিশিষ্ট রোবটগুলি যেন শরীরের ভারসাম্য ঠিক মতো বজায় রাখতে পারে, সেই উদ্দেশ্যে গত বছর চার পায়ের প্রোটোটাইপ রোবট তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কোম্পানিটি। আরও জরুরি কথা হলো, বেক্স-কে ডিজাইন করা হয়েছিল মূলত কৃষি খাতের কাজগুলি করার জন্য। এর ফলে জাপানের গ্রামীণ অঞ্চলে শ্রমিক সংকটের একটা আশু সমাধান হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কাওয়াসাকি হেভি ইন্ডাস্ট্রিজের রোবট বিজনেস ডিভিশনের নির্বাহী কর্মকর্তা, নোবোরু তাকাগি, বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, “জাপানের বয়স্ক সমাজে, এটি বয়স্ক লোকদেরও সাহায্য করতে পারে, যাদের ভারী মালামাল বহন করতে হয়। উদাহরণস্বরূপ, এটি কৃষিকাজ বা বনজ শিল্পকে সহায়তা করতে পারে, যেখানে লোকেদের প্রতিনিয়ত ভারী মালামাল টানতে হয়।”

কোম্পানিটি এই বছর বেক্সের পরীক্ষা চালিয়ে যাবে এবং তারা ২০২৩ সালে রোবটটিকে বাণিজ্যিকীকরণের আশা করছে।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।