ভোলা ও বরিশাল জেলার সীমানায় চর দখল নিয়ে সংঘর্ষ, সাত পুলিশসহ আহত ২০



বাংলাদেশের ভোলা ও বরিশাল জেলার সীমানা এলাকায়, চর দখলকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায়, সাত পুলিশসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে, পুলিশ ২৮ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ ঘটনায় ২৪ জনের নামে ভোলা থানায় মামলা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জুন) সকালে, পুলিশ ১২ জনকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) দুপুর ২টার দিকে, ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের চর চটকিমারা ও বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের সীমানা এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, “বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে মেহেন্দীগঞ্জের শ্রীপুর ইউনিয়নের রুবেল কাজীর গ্রুপ, ভোলার সীমানা পার হয়ে, ঘর তুলতেছিলেন। এ সময় ভোলার চর চটকিমারা এলাকার বাসিন্দারা তাদের বাঁধা দিলে, দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। খবর পেয়ে চর চটকিমারা ক্যাম্পের পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়। তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে, পুলিশের ওপর হামলা হয়। এসময় পুলিশ ২৮ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ ঘটনায় সাত পুলিশসহ উভয় গ্রুপের ২০জন আহত হয়েছে।”

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন; ভেদুরিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপপরিদর্শক (এসআই) ইনজামুল হোসেন (২৯), চর চটকিমারা পুলিশ ক্যাম্পের সদস্য আরিফ (২৫), আলিম (২৪), সাগর (২৪), পিয়াল রোগা (২৪), শ্রী সুজয় (২৪), শফিউর (২৫)। আহত চার পুলিশ সদস্য বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে, ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। বাকী তিনজন স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছে।অন্য আহতদের নাম জানা যায়নি।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, “গত কয়েক বছর ধরে শ্রীপুরের রুবেল কাজী মাঝে মাঝেই ভোলার চর চটকিমারায় প্রবেশ করে মানুষের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগসহ লুটপাট করে আসছে। এমন পরিস্থিতিতে, চরের বাসিন্দারা, চরে পুলিশ ক্যাম্পে স্থাপনের দাবি জানালে চলতি বছরে ওই চরে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়।”

“পুলিশ ক্যাম্পে স্থাপনের পরও হামলা ও দখলের ভয়ে থাকেন তারা;” জানান চরের বাসিন্দারা। এ ব্যাপারে রুবেল কাজীর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন জানান, “ভোলা-বরিশাল সীমানায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে, চার পুলিশ সদস্য আহত হয়ে ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে, পুলিশ ২৮ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ বাদী হয়ে ২৪ জনের নামে ভোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করে। শুক্রবার অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে আটক করা হয়েছে।”



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।