রাশিয়ার ‘বিদেশী এজেন্ট’ আইন অধিকার লঙ্ঘন করেছে বলে রায় দিয়েছে ইউরোপীয় আদালত



ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ হিউম্যান রাইটস (ইসিএইচআর) মঙ্গলবার রায় দিয়েছে, “বিদেশী এজেন্টদের” বিষয়ে রাশিয়ার আইন, মনোনীত গোষ্ঠীগুলির অধিকার লঙ্ঘন করেছে এবং রাশিয়াকে তাদের মধ্যে অনেককে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

রাশিয়া “বিদেশী এজেন্ট” শব্দটি ব্যবহার করে, যা মূলত স্নায়ুযুদ্ধের সময়কার গুপ্তচরবৃত্তির অর্থ বহন করে, বিদেশী সমর্থনে রাজনৈতিক কার্যকলাপে জড়িত বলে মনে করা সংস্থা এবং ব্যক্তিদের চিহ্নিত করার জন্য।

বিদেশী এজেন্ট হিসাবে অভিহিত ৭৩টি রুশ গোষ্ঠীর ক্ষেত্রে তার রায়ে, ইউরোপের শীর্ষ মানবাধিকার আদালত বলেছে, আইনটি সমাবেশ এবং সমিতির স্বাধীনতা লঙ্ঘন করেছে।

আদালত বলেছে, গোষ্ঠীগুলিকে বিদেশী এজেন্ট হিসাবে অভিহিত করার মানদণ্ড হিসাবে রাজনৈতিক কার্যকলাপের ব্যবহার “অসংগত ফলাফল এবং বিশেষত, মানবাধিকার, পরিবেশ সুরক্ষা কিংবা দাতব্য কাজের সাথে সম্পর্কিত নাগরিক সমাজের কার্যকলাপে জড়িত হতে ইচ্ছুক এনজিওগুলির মধ্যে এক ধরনের অনিশ্চয়তা তৈরি করেছে।”

তবে, ক্রেমলিনের মুখপাত্র দ্যমিত্রি পেসকভ বলেছেন, তিনি এই রায়ের বিষয়ে কোনও মন্তব্য করবেন না। কারণ সংসদ গত সপ্তাহে স্বাক্ষরিত এক আইনের মাধ্যমে রাশিয়ার উপর ইউরোপীয় মানবাধিকার আদালতের এখতিয়ার শেষ করেছে।

তিনি এক কনফারেন্স কলে সংবাদদাতাদের বলেন, “রাশিয়া আর এই সিদ্ধান্তগুলি বাস্তবায়ন করে না।”

রাশিয়ার মানবাধিকার গোষ্ঠী আগোরা, ইসিএইচআর মামলার আবেদনকারীদের মধ্যে একজন। তারা এই রায়কে “বড় বিজয়” হিসাবে উল্লেখ করে, একে স্বাগত জানিয়েছে।

আগোরা আইনজীবী কিরিল কোরোতেয়েভ বলেছেন, “আদালত আবেদনকারী সংস্থাগুলির সাথে সম্পূর্ণরূপে একমত যে, বিদেশী এজেন্টদের আইনটি কেবল অপ্রত্যাশিতই নয় বরং নাগরিক সমাজের বৈধ কাজকেও বাধা দেয়।”

রাশিয়ার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ গত ২৪ ফেব্রুয়ারী রাশিয়া ইউক্রেনে সৈন্য প্রেরণের পর থেকে পশ্চিমের গভীর অবিশ্বাসের সময়ে “বিদেশী এজেন্ট” আইনকে আরও কঠোর করার একটি প্রস্তাবের প্রাথমিক অনুমোদন দেওয়ার এক সপ্তাহ পরে এই রায় এলো।

রাশিয়ায় এই ধরনের আইন প্রথম গৃহীত হয় ২০১২ সালে। এরপর থেকে এটি অলাভজনক সংস্থা, মিডিয়া আউটলেট এবং সাংবাদিক ও কর্মীসহ পৃথক রাশিয়ার নাগরিকদের অন্তর্ভুক্ত করার জন্য প্রসারিত হয়েছে।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।