সিভিয়ারোডোনেটস্কের যুদ্ধ সবচেয়ে কঠিন যুদ্ধগুলির একটিঃ জেলেন্সকি



ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি বলেছেন, পূর্বাঞ্চলীয় শহর সিভিয়ারোডোনেটস্কের লড়াই হচ্ছে “সবচেয়ে কঠিন” যুদ্ধের একটি। গুরুত্বপূর্ণ ডনবাস অঞ্চলে এর গুরুত্ব তুলে ধরতে গিয়ে তিনি একথা বলেন।

বুধবার রাতে এক ভিডিও বক্তব্যে জেলেন্সকি বলেন, “নানা দিক থেকেই, ডনবাসে আমাদের ভাগ্য নির্ধারণ হচ্ছে।“

রাশিয়ার প্রচণ্ড আক্রমণের মুখে, বুধবার ইউক্রেনীয় বাহিনী পিছু হটে সিভিয়েরোডোনেটস্কের উপকণ্ঠে সরে যেতে বাধ্য হয়। কয়েক দিন আগে, ইউক্রেনীয় বাহিনী পালটা আক্রমণ চালিয়ে অর্ধেক শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল। তবে, লুহানস্কের আঞ্চলিক গভর্নর সেরহি হাইদাই ইউক্রেনের আরবিসি সংবাদমাধ্যমকে বলেন,“রাশিয়া যখন গোলাবর্ষণ এবং বিমান হামলা করে শহরটিকে মাটির সাথে মিশিয়ে দিচ্ছিল, তখন সেখানে থাকার কোনো অর্থ ছিল না।”

কয়েক সপ্তাহ ধরে পূর্ব ইউক্রেনকে হামলার কেন্দ্রে পরিনত করে রাশিয়াপরে, রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু মঙ্গলবার বলেছেন, “রুশ বাহিনী এখন লুহানস্ক প্রদেশের ৯৭ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করছে।”

সিভিয়েরোডোনেটস্ক হলো এই অঞ্চলের সর্বশেষ বৃহত্তম শহর, যা মস্কো, তাদের আক্রমণ শুরুর সাড়ে ৩ মাস পরও দখলে নিতে পারেনি।

শোইগু বলেন,“রুশ সৈন্যরা পোপাসনা শহরের দিকেও অগ্রসর হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন,“তারা ঐ অঞ্চলের লাইমান এবং সভিয়েতোহিরস্কসহ ১৫টি শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

এ প্রতিবেদনের কিছু তহ্য এপি, এএফপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।