সীমান্ত সমন্বয় সম্মেলনে যোগ দিতে বাংলাদেশে এসেছে বিএসএফের ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দল



বিজিবি ও বিএসএফ-এর সীমান্ত সমন্বয় সম্মেলনে যোগ দিতে, ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ-এর , আট সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে এসেছে।

বৃহস্পতিবার (০৯ জুন) সকাল ১১ টায়, প্রতিনিধি দলটি ভারতের পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। এ সময়, বিএসএফ প্রতিনিধি দলকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান, বিজিবির রিজিয়ন কমান্ডার মো. ওমর সাদী।

বিজিবি’র দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়ন, যশোর ও রংপুর এবং বিএসএ’র নর্থ বেঙ্গল, সাউথ বেঙ্গল ও গোহাটি ফ্রন্টিয়ার-এর কর্মকর্তারা সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন।

বিজিবি’র দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়ন যশোরের রিজিয়ন কমান্ডার অতিরিক্ত মহাপরিচালক ওমর সাদী’র নেতৃত্বে ১৮ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন।

বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে, বিজিবি’র উত্তর-পশ্চিম রিজিয়ন রংপুর এর রিজিয়ন কমান্ডার এবং যশোর ও রংপুর রিজিয়নের সংশ্লিষ্ট সেক্টর কমান্ডারগণ, বিজিবি সদর দপ্তরের প্রতিনিধি; পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এবং ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের প্রতিনিধিবৃন্দ রয়েছেন।

অপরদিকে, বিএসএফ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন, সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের আইজি ডা. অতুল ফুলজেল। এছাড়া, ভারতীয় প্রতিনিধিদলে রয়েছেন, বিএসএফ-এর নর্থবেঙ্গল ও গোহাটি ফ্রন্টিয়ারের আইজি, সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার ও সেক্টর পর্যায়ের ষ্টাফ অফিসারবৃন্দ এবং ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্র এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা।

বিজিবির রিজিয়ন কমান্ডার মো. ওমর সাদী জানান, “সম্মেলনে, সীমান্তে নিরস্ত্র বাংলাদেশী নাগরিকদের গুলি, হত্যা, মাদক ও নেশা-দ্রব্যের চোরাচালান, অস্ত্র ও গোলাবারুদ চোরাচালান, সীমান্তে বাংলাদেশী নাগরিক আটক, অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম, সীমান্ত এলাকায় কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ কাজ সংক্রান্ত ইস্যু আলোচিত হবে। এছাড়া, সীমান্তে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ, বিজিবি-বিএসএফ সমন্বিত টহল, উভয় বাহিনীর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা বৃদ্ধি এবং যৌথ সেমিনার, সিম্পেজিয়াম, ওয়ার্কশপও আলোচনায় স্থান পাবে।”

সম্মেলন শেষে আগামী ১২ জুন বিকালে, ভারতীয় প্রতিনিধি দল বেনাপোল বর্ডার দিয়ে ভারতে ফিরে যাবেন।



Source link

maria

এই যে, এই প্রবন্ধ পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ. আমি একজন ওয়েব ডেভেলপার, 10 বছর ধরে লিখছি, এবং একজন প্রযুক্তি প্রেমী।